আচার্য চানক্য ছিলেন প্রাচীন ভারতের একজন কূটনীতিবিদ, অর্থনীতিবিদ, দার্শনিক, এবং রাজ উপদেষ্টা।তিনি তার কূটনৈতিক বুদ্ধির জন্য কৌটিল্য নামেও পরিচিত।তিনি গুপ্ত সম্রাট চন্দ্রগুপ্ত এবং তার পুত্র বিন্দুসারের রাজ উপদেষ্টা ছিলেন। তিনি অর্থশাস্ত্র এবং চানক্য নীতি নামক দুটি গ্রন্থও রচনা করেন। তার নীতি অনুসারে জীবনে ৩ টি জিনিস স্মরণ করে চললে জীবনে সর্বদা সুখ বিরাজমান থাকবে।

আর এই ৩ টি জিনিসে সন্তুষ্টি না থাকলে জীবনে জটিল থেকে জটিলতম সমস্যা দেখা দেবে বলে তিনি মনে করেছেন। সেই তিনটি জিনিস হলো খাবার, টাকা এবং স্ত্রীর রূপ। তিনি বলেছেন জীবনে যেরকম ই খাবার পান না কেনো তা সন্তুষ্টি ভরে গ্রহণ করবেন।

খাবার কে কখনও অপমান করা উচিত নয়। আর যেরকম ই খাবার পাচ্ছেন তার জন্য সব সময় ঈশ্বরকে ধন্যবাদ জানান। দ্বিতীয় টি হলো টাকা।টাকা আপনার কাছে যতটুকু আছে ততটুকু তেই সন্তুষ্ট থাকার চেষ্টা করুন। সব সময় নিজের আয়ও বুঝে নিজের সাধ্যমতো খরচ করার চেষ্টা করুন।

তৃতীয় যেই জিনিসটিতে চানক্য সব সময় সন্তুষ্ট থাকতে বলেছেন সেটি হলো স্ত্রীর রূপ।নিজের স্ত্রী কে সুন্দর কুৎসিত যেমনই দেখতে হোক না কেনো তার প্রতি সব সময় সন্তুষ্ট থাকা উচিত।নিজ স্ত্রী ব্যতীত অন্য কোনো মহিলার ওপর আকৃষ্ট হওয়া উচিৎ না।নিজের স্ত্রীকে সব সময় সম্মান করতে বলেছেন তিনি।তিনি এও বলেছেন যে এর অন্যথা হলে জীবনে জটিল সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে।

তবে চানক্য আরো তিনটি জিনিসের কথা বলেছেন যার প্রতি কখনো সন্তুষ্ট হতে না করেছেন। সেগুলো হল দান জপ ও শিক্ষা।এই তিনটি জিনিস জীবনে যত বেশি পরিমাণে করবেন তত বেশি সুখ লাভ হবে বলে মনে করেছেন তিনি।