স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া হল একটি ভারতীয় বহুজাতিক ব্যাঙ্ক ও আর্থিক পরিষেবা প্রদানকারী কোম্পানি। এটি একটি রাষ্ট্রায়ত্ত নিগম, যার প্রধান কার্যালয় হল মুম্বই, মহারাষ্ট্র। এটি ভারতের তথা দক্ষিণ এশিয়ার বৃহত্তম ব্যাঙ্ক। করোনা মহামারীর জেরে ব্যাঙ্কের তরফে একাধিক নিয়মে বদল করা হয়েছিল৷

দেশের সবচেয়ে বড় রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া গ্রাহকদের ইতিমধ্যেই জানিয়ে দিয়েছে যে এবার ক্রেডিট ও ডেবিট কার্ডের কিছু পরিষেবা ৩০ সেপ্টেম্বরের পর থেকে বন্ধ করে দেওয়া হবে ৷ অর্থাৎ এই সমস্ত পরিষেবা ১ অক্টোবর থেকে আর মিলবে না ৷

রিজার্ভ ব্যাঙ্ক ক্রেডিট ও ডেবিট কার্ডের একাধিক নিয়ম বদল করতে চলেছে পয়লা অক্টোবর থেকে ৷ এই সমস্ত পরিষেবা আন্তর্জাতিক লেনদেনের সঙ্গে যুক্ত ৷ভারতীয় স্টেট ব্যাংকে নেট ব্যাঙ্কিং এবং মোবাইল ব্যাঙ্কিংয়ের মাধ্যমে লেনদেন করেন? তা হলে ৩০ নভেম্বরের আগে অবশ্যই ফোন নম্বর রেজিস্টার করুন একাউন্টের সাথে। এই কাজটি করে ফেলুন। না হলে সমস্ত পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়া হবে। তেমনটাই জানানো হয়েছে স্টেট ব্যাংক সূত্রে।

SBI এর তরফে জানানো হয়েছে যে আপনি যদি আপনার কার্ডের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক বাজার থেকে জিনিস কেনার সুবিধা জারি রাখতে চান তাহলে INTL লিখে তারপর কার্ড নম্বরের শেষের চারটি সংখ্যা লিখে 5676791 নম্বরে এসএমএস পাঠাতে হবে ৷ মহামারী চলাকালীন কার্ড জারিকর্তাদের আরবিআই এই নিয়ম লাগু করার জন্য ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সময় দেওয়া হয়েছে ৷

রিজার্ভ ব্যাঙ্কের নতুন নিয়ম অনুযায়ী, গ্রাহকদের আন্তর্জাতিক, অনলাইন ও কন্ট্যাক্টলেস কার্ডে লেনদেন করার জন্য আলাদা করে আবেদন জানাতে হবে ৷ দরকার না থাকলে এটিএম থেকে টাকা তোলা ও পিওএস টার্মিনালে শপিং করার জন্য বিদেশে লেনদেনের অনুমতি দেওয়া হবে না ৷

আরবিআই-এর নতুন নিয়ম অনুযায়ী, গ্রাহকদের প্রয়োজন হলে তবেই তারা এই পরিষেবা পাবেন ৷ এই পরিষেবার জন্য গ্রাহকদের আলাদা করে আবেদন করতে হবে ৷ রিজার্ভ ব্যাঙ্কের তরফে ব্যাঙ্কগুলিকে জানানো হয়েছে, ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ড জারি করার সময় গ্রাহকদের কেবল দেশের মধ্যে লেনদেনের জন্য অনুমতি দেওয়া হবে ৷

পয়লা অক্টোবর থেকে আয়কর সংক্রান্ত বড় একটি নিয়ম বদলাতে চলেছে ৷ এই অনুযায়ী, এবার দেশের বাইরে টাকা পাঠালে TCS অর্থাৎ Tax Collected at Source কাটা হবে ৷
২০১৯-২০ অ্যাসেসমেন্ট ইয়ারের জন্য আয়কর রিটার্ন জমা দেওয়ার শেষ দিন ছিল আজ, অর্থাৎ ৩০ সেপ্টেম্বর৷ সেই সময়সীমা বাড়িয়ে করা হল ৩০ নভেম্বর৷ অন্যদিকে ২০২০-২১ অ্যাসেসমেন্ট ইয়ার (২০১৯-২০ অর্থবর্ষ)-এর জন্য আয়কর রিটার্নের শেষ তারিখ ৩০ নভেম্বর।