বর্তমান করোনা মহামারী প্রকোপ সারা বিশ্বজুড়ে এখনো কোনো রকম নিয়ন্ত্রণে আসেনি ।এর মধ্যে অনেকের এখনো সেইভাবে কাজে যোগদান করতে পারেনি।এই গৃহবন্দি কিছুদিন হয়তো সাধারণ মানুষের কাছে খুব উপভোগ সময় ছিল। কিন্তু প্রতিনিয়ত যতদিন ক্রমশ অতিবাহিত হচ্ছে ততো মনে হচ্ছে যেন মানুষ ক্রমশ অলস হয়ে পড়ছে।

আর সেই সময় মানুষ তার অবসর সময় তাকে কিছুটা উপভোগ করার জন্য সোশ্যাল মিডিয়ায় সম্পূর্ণভাবে বিদ্যমান ।এই সোশ্যাল মিডিয়ায় একদিকে যেমন ভাল প্রভাব ফেলে তেমনি আবার কিছু খারাপ প্রভাব রয়েছে কিন্তু এত কথায় না গিয়ে খারাপ সময়ে মন ভালো করা দুর্দান্ত হট ছবি পরপর দিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করে দর্শককে উজ্জীবিত করে রাখছে মা সিরিয়ালের ঝিলিক ।

যতই দিন যাচ্ছে ঝিলিক বড় হয়ে উঠছে এবং ক্রমশ তিনি সুন্দরী আকর্ষণীয় মোহময়ী রূপে দর্শকদের আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু হয়ে উঠছেন দিনে দিনে তার ফ্যান ফলোইং বৃদ্ধি করতে তিনি যথেষ্ট সিদ্ধহস্ত পটু হাতে তিনি দর্শকদের মন ভরিয়ে রাখছেন।

সম্প্রতি একটি অতি জনপ্রিয় চ্যানেল স্টার জলসায় বহু বছর আগে একটি জনপ্রিয় ধারাবাহিক প্রতিবেদন ছিল মা। মা শব্দটি শুনতে ছোট থেকেই এর মধ্যে জড়িয়ে আছে অনেককষ্ট অনেক ভালোবাসা সবকিছু মিলিয়ে এই শব্দটি জর্জরিত ।

তাই হয়তো বহুদিন আগে যখন এই ধারাবাহিকটি স্টার জলসায় নামক চ্যানেলে প্রতিবেদন করা হতো তখন হয়তো বাচ্চা থেকে বুড়ো সবাই কিন্তু একটি নির্দিষ্ট সময় ঠিক যেন বোকা বাক্সের পর্দায় নিজেকে নিয়োজিত করে দিতেন।

হয়তো এই ধারাবাহিকের মধ্যে ছিল বাস্তব জীবনের কাহিনী কিছু ভালোলাগা কিছু খারাপ লাগা এবং তার সাথে কিছু সমাজ বিরোধী কার্যকলাপ ।এই মা ধারাবাহিকটি অনেকেই দেখতেন সন্ধ্যারাতে প্রায় ঘরে ঘরে চলতো এই জনপ্রিয় ধারাবাহিকটি।এই মা সিরিয়ালের প্রধান মুখপাত্র ছিলেন ঝিলিক তথা তিথি বসু ।মা ও মেয়ের আন্তরিক যে টান সেটা কিন্তু দর্শকদের মনে গভীর স্থান করে নিয়েছিল।

ধারাবাহিকটিতে দেখানো হয়েছে ছোটবেলায় ঝিলিক তথা তিথি বসু তিনি মায়ের কোল থেকে হারিয়ে গিয়েছেন এই ছোট্ট দিদির শিশুটির মায়ের কোল থেকে হারিয়ে যাওয়া সেই কষ্ট দুঃখ দর্শককে গভীর প্রভাব ফেলেছিল। এই ধারাবাহিকটি অতি জনপ্রিয় একটি গান ছিলো – তোমায় ছাড়া ঘুম আসেনা মা।

এই ধারাবাহিকে প্রধান চরিত্রের নাম ছিল ঝিলিক ।তার নাম তিথি বসু । ঝিলিক নামে এই সকলের কাছে পরিচিত । তিথি বসু ওরফে ঝিলিক ক্লাস 3 থেকেক্লাস 9 পর্যন্ত ধারাবাহিকটি সঙ্গে যুক্ত ছিলেন ।খুব ছোট বয়স থেকেই তিনি অভিনয় জগতে এসেছেন শোনা যায়। তিনি টালিগঞ্জের রানিকুঠি এলাকায় বসবাস করেন

সেই তিথি বসু বর্তমানে অনেক বড় হয়েছেন । টালিগঞ্জ এলাকার জিডি বিড়লা স্কুলের ছাত্রী। তিনি বর্তমানে স্কুল শিক্ষা শেষ করে আশুতোষ কলেজে সাইকোলজি নিয়ে পড়াশোনা করেন। বর্তমানে নিজেকে তিনি সোশ্যাল মিডিয়া ধরে রাখার চেষ্টা করেছেন। এর সাথে সাথে প্রচুর ছবি ভাইরাল হয়।দীর্ঘ লকডাউনের মধ্যে অনেক হট লুকিয়ে ছবি তুলেছেন আর এই সোশ্যাল মিডিয়ায় তার সেই সব হট লুক এর ছবি নিমিষের মধ্যে ভাইরাল হচ্ছে।

আর সেই সব ছবিতে নেটিজেনরা ছোট্ট সেই মায়ের কোলে থাকা ঝিলিককে দেখে পুরো অবাক হয়ে গেছেন। আবার অনেকেই বিদ্রুপ কিছু মন্তব্য করেছেন। একটি অতি জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া সংস্থা ইনস্টাগ্রামে সেই সব ছবিভাইরাল হয় ।কিন্তু তিথি বসু সেইসব নেটিজেনদের বিরূপ মন্তব্যের কোন তোয়াক্কা না করে নিজের মত ছবি শেয়ার করেছেন।

View this post on Instagram

Throwback to shorter hair and cuter me🤪

A post shared by Tithi Basu (@c_h_i_r_p_s) on

সম্প্রতি তাঁর ইনস্টাগ্রামে নতুন চমক দিয়ে আকর্ষণীয় উষ্ণতায় ভরপুর যৌবনে পা দেওয়া সদ্য তরুণী যে কিনা যে কোন পুরুষের হার্ট থ্রব তিনি একটি গারো আকাশী টপের উপর ধূসর বর্ণের পাতলা জ্যাকেট এবং জিন্সের শার্ট প্যান্ট পড়ে সুন্দর শরীরে আকর্ষণ ক্ষমতা দাঁড়িয়ে নিজের ব্যক্তিত্ত তুলে ধরেন যা দেখে তরুণ প্রজন্ম যুবকদের হার্টবিট বেড়ে ওঠে।