লাদাখ নিয়ে চীনের সঙ্গে সমস্যা মেটার আগেই জম্মু কাশ্মীরে পাকিস্তানের সঙ্গে ফের একবার গুলির লড়াই চলল ভারতীয় সেনার। গতকালের পর আজ আবার এলওসিতে আরেকবার যুদ্ধ বিরতি লঙ্ঘন করল পাক সেনারা। জম্মু কাশ্মীরের পুঞ্চ জেলার মানাকোট সেক্টরে মঙ্গলবার সকালে যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করে গুলি চালায় পাকিস্তান বাহিনী।

মঙ্গলবার ভোর সাড়ে ৬ টা নাগাদ হামলা চালায় পাকসেনা, ভারতীয় সেনা তৎক্ষণাৎ মোক্ষম জবাব দেয় তাদের। এখনও পর্যন্ত কোনও ক্ষয় ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি। এর আগে সোমবারেও এলওসি-তে খারি কারমারা এলাকায় যুদ্ধ বিরতি লঙ্ঘন করছিল পাকসেনা।

কাশ্মীরে একসঙ্গে দুই শত্রুপক্ষের বিরুদ্ধে লড়তে হয় ভারতকে। কখনো নিষিদ্ধ জঙ্গী সংগঠনের সঙ্গে আবার কখনো পাক সেনাবাহিনীর সঙ্গে। কিন্তু কোন ক্ষেত্রেই হাল ছাড়ে না ভারতীয় সেনা যেদিক থেকেই আক্রমণ আসুক না কেন চূড়ান্ত সফলতা সঙ্গে শত্রুদের মোক্ষম জবাব দেয় ভারত।

গত রবিবার থেকে সোমবার পর্যন্ত সেনা ও জঙ্গির গুলির লড়াইয়ে মোট নয় জন জঙ্গীকে শেষ করার সম্ভব হয়েছে। এরা সকলেই হিজবুল মুজাহিদিন জঙ্গি সংগঠনের সদস্য বলে জানা গিয়েছে। সেইসঙ্গে উদ্ধার হয়েছে বিপুল পরিমাণ অস্ত্রশস্ত্র।

শেষ দুই সপ্তাহে নয়টি বড় অপারেশন চালিয়েছে ভারতীয় সেনা। এখনও অবধি সবক’টি অপারেশনে ২২ জন জঙ্গিকে নিকেশ করা সম্ভব হয়েছে।

লেফটেন্যান্ট জেনারেল বি এস রাজু জানাচ্ছেন, আগে যেরকম কাশ্মীরিরা জঙ্গি সংগঠনগুলোকে যেভাবে সাহায্য করত এখন আর সেই ভাবে সাহায্য করছে না কারণ কাশ্মীরিরা এখন শান্তি ফেরত চাইছেন। তারা এখন যেকোনো রকম জঙ্গি সংগঠনকে সাহায্য করতে নারাজ। তাঁর মতে, বিচ্ছিন্নতাবাদীদের জনপ্রিয়তার ভিত্তিও কমে এসেছে। ফলে হালে পানি পাচ্ছে না জঙ্গিরা।