মারন ভাইরাস করোনার কবলে পরে গোটা দেশ যেনো কাবু। কিন্তু তার মধ্যেও অপরাধ যেনো দিন দিন বেড়েই চলেছে।

পেটে খুব যন্ত্রনা হচ্ছে দেখে এক তান্ত্রিকের কাছে গিয়েছিলেন এক ভদ্র মহিলা। যদিও তাঁর স্বামীই ডাক্তারের কাছে না নিয়ে গিয়ে তাকে তান্ত্রিকের কাছে নিয়ে যায়।

তান্ত্রিকের কাছে যাবার পরই ঘটলো বিপদ!! ভদ্রলোককে তান্ত্রিক কিছু জিনিস কিনে আনতে বলেন। স্ত্রীক তান্ত্রিকের কাছে রেখে জিনিসগুলি কিনতে চলে যান ভদ্রলোক।

তারপরই পরীক্ষার নাম করে মহিলাটির বিভিন্ন স্থানে স্পর্শ করতে থাকে তান্ত্রিক। কিছুক্ষণের মধ্যে মহিলাটির উপর ঝাঁপিয়েও পরে তান্ত্রিক। তখনই মহিলাটি চিৎকার করতে শুরু করে। ঠিক তখনই জিনিস কিনে ফিরে আসা স্বামী সেই রুমের ভিতরে চলে আসে এবং দেখে তার স্ত্রীকে রে-প করছে।

তান্ত্রিকের সাকরেট চেষ্টা করে তান্ত্রিকের সাথে ওই ভদ্রলোকের মিটমাট করে ফেলতে কিন্তু তা সম্ভব কিন্তু তান্ত্রিককে মারধোর করেন।

মারাত্মক ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের ভাদোহি জেলায়। ইতিমধ্যে পুলিশ ওই ব্যাক্তকে গ্রেফতার করেছে বলে জানা গেছে।